টঙ্গীতে ইজতেমার ময়দান পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার

ধর্ম শিরোনাম
গাজীপুর প্রতিনিধি, জায়েদুল হক ডালিম:   
টঙ্গীতে তুরাগ নদের তীরে আগামী ১০ জানুয়ারি (শুক্রবার) ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম পর্বের ইজতেমা। চার দিন বিরতীর পর ১৭ জানুয়ারি হবে দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা। বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে শনিবার দুপুরে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ জয়নুল বারী ইজতেমা ময়দান পরিদর্শন করেন। এসময় কমিশনার ইজতেমা ময়দানে প্যান্ডেল তৈরী কাজের খোজ খবর নেন এবং মুসল্লীদের চলাচলের রাস্তা ও সকল সুযোগ সুবিধার খবর নেন।
ময়দান পরিদর্শনে তার সাথে ছিলেন, গাজীপুর জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহীনুর ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবু নাসার উদ্দিন,  পুলিশের এডিসি ক্রাইম শাহাদত হোসেন ও টঙ্গী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার আহসানুল হক।
মুসল্লিরা ইজতেমা মাঠের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার, মাটি কাটা, খুঁটি পেঁাতা, সামিয়ানা তৈরি, চট বঁাধাই, বয়ান মঞ্চ, বিদেশিদের কামরা নির্মাণসহ নানা ধরনের কাজ করছেন। ১০ জানুয়ারি বিশ্ব ইজতেমার ৫৫তম পর্বটি অনুষ্ঠিত হবে। ১২ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে। ১৭ জানুয়ারি শুরু হবে দ্বিতীয় পর্ব। ১৯ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে দ্বিতীয় পর্ব। প্রথম পর্বে ইজতেমায় অংশ নেবেন মাওলানা জোবায়েরপন্থী মুসল্লিরা। দ্বিতীয় পর্বে অংশ নেবেন মাওলানা সা’দ এর অনুসারীরা।
ময়দান পরিদর্শনের সময় কমিশনার বলেন, আগামী ১০ জানুয়ারী থেকে ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে আমরা প্রতিদিন ইজতেমা ময়দানের নানান সমস্যা সমাধানে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক তদারকি করে যাচ্ছে। মাঠের কার্যক্রম ও প্যান্ডেল নির্মাণ সম্পর্কে খোজ খবর নিতেই পরিদর্শনে আসেন। আশাকরি এবারের ইজতেমার আগেই ময়দানের সকল কাজ সম্পন্ন হবে।
ইজতেমা আয়োজক কমিটির সদস্য  ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজ হান্নান বলেন, আল্লাহর ইশারায় আমরা সময়ের আগেই ইজতেমা ময়দানের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে পারবো। এবারের ইজতেমা প্রতিবারের মতই সফল হবে এবং ইজতেমা সফল করতে সরকারের পক্ষ থেকেও একমাস আগে থেকেই আমাদের সাথে রেখে দিক নির্দেশনা দিয়ে আসছে।
পোস্টটি শেয়ার করুন