সিদ্ধিরগঞ্জে এক কিশোরের রহস্য-জনক মৃত্যু, গ্রেফতার-৩

অপরাধ শিরোনাম

এন.এন.এস২৪, সিদ্ধিরগঞ্জ: জিদান হোসেন তন্ময় নামে এক কিশোরের রহস্য-জনক মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর ব্যপারে স্বজনদের ধারনা পরিকল্পিত হত্যা, উপস্থিত এলাকাবাসীর বক্তব্য বিদুৎপৃষ্ট। গতকাল শুক্রবার ভোরে থানার কদমতলী মাদানীবাগ এলাকার শাহাজাহানের বাড়ির পার্শ্বে চায়ের দোকানে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ সকাল ৯’টায় মিজমিজি মধ্য পাড়া এলাকা থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ব্যপারে অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ সন্ধেহ জনক রতন, সাব্বির ও ইয়াছিন নামে ৩’জনকে গ্রেফতার করেছে।
পুলিশ ও নিহতর স্বজনরা জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি বাতানপাড়া ক্লাব সংলগ্ন পাইনাদী শুক্কুর আলীর ছেলে রতনের সাউন্ড সিষ্টেম ও ছোট বাতির দোকান। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে রতন কাজ করার কথা বলে মিজমিজি মধ্যপাড়া এলাকার বাসিন্ধা ফারুক ঢালির ছেলে জিদান হাসান তন্ময়কে নিয়ে যায়। গতকাল শুক্রবার সকালে তন্ময়ের বাড়ির সামনে ইজিবাইক দিয়ে নিয়ে তন্ময়ের বাবা ফারুক ঢালীর কাছে লাশ বুঝিয়ে দেয়। এসময় তন্ময়ের বাবা লাশ বহনকারীদের তার ছেলের মৃত্যুর কারন জানতে চাইলে বিদুৎ পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে চলে যায়। নিহতের পরিবার ধারনা করে তন্ময়কে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় গেলে থানা পুলিশ অপমৃত্যুর মামলা নিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করে। পরে ঘটনাস্থল থানার কদমতলী মাদানীবাগ এলাকার শাহাজাহানের বাড়ির পার্শ্বে চায়ের দোকানে পুলিশ গিয়ে পরিদর্শন করে। রতনের দাবি গতকাল শুক্রবার ভোরে কাজ করার সময় বিদুৎ পৃষ্ট হয়ে তন্ময় মারা যায়। তাকে বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালের ডাক্তার তন্ময়কে মৃত ঘোষনা করলে সকালে তন্ময়ের লাশ তার বাড়িতে পৌছে দেওয়া হয়। পুলিশ এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা নিলেও হত্যা সন্ধেহে রতন, সাব্বির ও ইয়াছিন নামে ৩’জনকে গ্রেফতার করে। ধৃতদের মামলার সম্পর্ক দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে বলে ওসি(তদন্ত) আজিজুল হক জানায়। তিনি আরো জানান, আমাদের ধারনা বিদুৎপৃষ্ট হয়ে তন্ময়ের মৃত্যু হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন