কুড়িগ্রামে পৃথক অভিযানে ১৯ জন আটক; রৌমারীতে হিরোইন ও ইয়াবা উদ্ধার

অপরাধ শিরোনাম

এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: গতকাল (২৫ ডিসেম্বর) কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের বিশেষ অভিযানে বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ১৯ জনকে আটক করা হয়। এরমধ্যে রৌমারী থানা পুলিশের অভিযানে শাহ জামাল (৪৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে ১৫০ পিচ ইয়াবা ও ৩৪.৬০০ গ্রাম হিরোইন সহ আটক করে। কুড়িগ্রাম ডিবি পুলিশ উলিপুরের বজড়া কাশিমবাজার এলাকা থেকে জুয়াখেলার সরন্জামাদি, ১টি মোটরবাইক ও ১৯ হাজার টাকা সহ মোট ১৩ জন জুয়ারিকে আটক করে। কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশের অভিযানে সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা থেকে ৫ জন জুয়ারিকে আটক করেছে পুলিশ।

কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহাফুজুর রহমান ৫ জন জুয়ারীকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন গতকাল (২৫ ডিসেম্বর) মামলা রুজু করে জুয়ারীদের কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কুড়িগ্রাম ডিবির ওসি মোঃ মোস্তাফিজার রহমান জুয়া বিরোধী অভিযানে বজড়া ইউনিয়নের কাশিমবাজার এলাকা থেকে জুয়া খেলার আসর হতে জুয়ার সরন্জামাদি, নগদ ১৯ হাজার টাকা, জুয়ারিদের ব্যবহৃত ১টি মোটর সাইকেল সহ মোট ১৩ জন আটক হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান গতকাল ২৫/১২/১৯ ইং মামলা রজু করে আসামীদের কোর্ট হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

এদিকে রৌমারী থানা পুলিশ এক অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী শাহ জামালকে (৪৫) ৩৪.৬০০ গ্রাম হিরোইন যার আনুমানিক মুল্য ৩ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা ও ১৫০ পিচ ইয়াবা সহ আটক হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রৌমারী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু মোহাম্মদ দিলওয়ার হাসান ইনাম। তিনি মোবাইল ফোনে জানান, গতকাল ২৫/১২/১৯ইং মাদক ব্যবসায়ী শাহজামালের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা রুজু করে কুড়িগ্রাম কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম) এ তিনটি অভিযানকে উল্লেখ করে,”পুলিশ সুপার কুড়িগ্রাম” ফেসবুক পেজ স্টাটাসে বলেছেন, মাদক ও জুয়া বিরোধী পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। শীতকালে বিনোদনের নামে জুয়া ও মাদকের অপবিনোদন ঠেকাতে মাঠে পুলিশ নিয়মিত অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে, পাশাপাশি তিনি তথ্য দিয়ে জেলা পুলিশকে সহযোগীতা করার আহবান জানান।

পোস্টটি শেয়ার করুন