সিরাজদিখানে প্রায় ২০ হাজার মানুষের যাতায়াত করা ব্রিজ, বাল্কহেডের ধাক্কায় ফাটল

শিরোনাম সারাদেশ
মোঃ জামাল হোসেন সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি : মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে বাল্কহেডের ধাক্কায় নতুন ভাষানচর ব্রিজের মাঝ পিলারের নিচের টানা অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। যে কোন মুহুর্তে ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। এলাকার হাজার হাজার মানুষ ভোগান্তির আশঙ্কা
বৃহস্পতিবার ১২ আগষ্ট ভোর ৪ টায় উপজেলার লতব্দী ইউনিয়নের নতুন ভাষানচর ব্রিজের সাথে সাড়ে ১০ হাজার ফুট বালি বহনকারী বাল্কহেডের ধাক্কায় মাঝ পিলারে দেখা দিয়েছে ঝুঁকিপুর্ন ফাটল। 
প্রত্যক্ষদর্শী নতুন ভাষানচর গ্রামের কামাল হোসেন (৪৫) জানান আমি ভোরে নদী থেকে মাছ ধরতে ব্রিজ সংলগ্ন নদীর পাড়ে আসলে হঠাৎ বিকট আওয়াজ শুনতে পাই। দেখি বিরাট একটি বালু বোঝাই বাল্কহেড ব্রিজে জোরে ধাক্কা মারে। আমার ডাক-চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে বাল্কহেডটি পালিয়ে যায়। 
টিপু সুলতান নামে স্থানীয় একজন জানান সকালে ফজরের নামাজ পরতে এসে শুনতে পাই ব্রিজের পিলারে বালু ভর্তি বাল্কহেড ধাক্কা দিয়ে ফাটল সৃষ্টি করে পালিয়ে যায়। ব্রিজটি এখন ঝুঁকিপূর্ণ হয়েগেল, এখান দিয়ে প্রতিদিন বড় ও ভারী বাল্কহেড যাওয়া আসা করে ড্রেজারে বালু আনলোড করতে। ব্রিজ দিয়েও ভারি ভারি যানবাহন চলাচল করে ও প্রতিদিন প্রায় ২০ হাজার লোকে যাতায়াত করে।উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করি এই ব্রিজটি দ্রুতই যেন মেরামত করেন। 
লতব্দী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ-এর সভাপতি ও লতব্দী ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য মো: জসিমউদদীন বলেন ভোররাতে বালু বোঝাই বাল্কহেড ব্রিজে সজোরে ধাক্কা দিলে ব্রিজের একটি পিলারে ফাটলের সৃষ্টি হয় যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। 
উপজেলা প্রকৌশলী শোয়াইব বিন আজাদ জানান খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়েছি ঘটনা নিশ্চিত হলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 
আগামীতে অবৈধ ভাবে বাল্কহেড যাতে চলাচল করতে না পারে সেই বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবগত করবো।
পোস্টটি শেয়ার করুন