সিরাজদিখানে সাবেক ইউপি সদস্যের হামলায় বিধবা গৃহবধূ সহ আহত ৩

শিরোনাম সারাদেশ
জামাল হোসেন সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি : মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে পুর্বশত্রুতার জেরে বয়রাগাদী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ-এর প্রচার সম্পাদক কাসেম শেখ গং এর হামলায় এক গৃহবধূ সহ ৩ জন গুরুতর আহত হয়েছে।
বিধবা গৃহবধূ রিনা বেগম (৪৫) আশংকাজনক অবস্থায় সিরাজদিখান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। রোববার ২৫ জুলাই বিকাল ৩ টায় উপজেলার বয়রাগাদী ইউনিয়নের দক্ষিণ গোবরদী গ্রামে এঘটনা ঘটে।আহত গৃহবধুর ছেলে জাহাঙ্গীর শেখ (৩২) বাদী হয়ে সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 
স্থানীয় সুত্রে জানাযায় দীর্ঘদিন যাবত বসতভিটার বন্টন নিয়ে কাসেম শেখ ও মৃত আব্দুল আউয়াল এর স্ত্রী গৃহবধূ রিনা বেগমের সাথে দ্বন্ধ চলে আসছে। গত কয়েক দফা স্থানীয় সালিশ গন মিমাংসা করতে ব্যর্থ হয়েছে। রোববার রিনা বেগমের মালিকানা বসতবাড়ীর অংশে একটি বসতঘর নির্মান করতে গেলে কাসেম শেখ গং দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে এলোপাতাড়ি হামলা করে রিনা বেগম, ছেলে অটোরিকশা চালক জাহাঙ্গীর, রিনা বেগমের বড় বোন পিয়ারা বেগম (৫০) কে রক্তাক্ত গুরুতর জখম করে। আহতদের ডাক-চিৎকারে আশেপাশের মানুষ এগিয়ে এলে প্রাননাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সিরাজদিখান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। 
স্থানীয়রা আরো জানান কাসেম শেখ বিভিন্ন সময়ে বিধবা গৃহবধুকে কুপ্রস্তাব দেওয়া সহ বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার হুমকি দিয়ে আসছে। কাসেম শেখ  আওয়ামী লীগের নেতা ও ইউপি সদস্য হওয়ায় ক্ষমতার দাপটে এলাকাবাসী ভয়ে মুখ বন্দ করে থাকতো। 
সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
পোস্টটি শেয়ার করুন