দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত তাসলিমাকে বাঁচাতে সহায়তা চান পরিবার

শিরোনাম সারাদেশ

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে জিনদপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেনের স্ট্যাটাস ” তাসলিমাকে বাঁচাতে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার অনুরোধ ” এর ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর মালাই দক্ষিণ পাড়া কাজী বাড়ির মোঃ গিয়াস উদ্দিনের দ্বিতীয় শ্রেণির পড়ুয়া তাসলিমা (১০) দুরারোগ্য ব্যাধিতে দীর্ঘ ২ বছর যাবত আক্রান্ত হয়ে হাটাচলা করতে পারছে না। তার চিকিৎসার জন্য সমাজের সকল বিত্তবানদের সহযোগিতা চান তার মা।

ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেখতে পেয়ে সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, তাসলিমা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে একটি হাত ও একটি পা অচল হয়ে গেছে। তার শরীলে প্রতি মাসে দুই বার এক ব্যাগ করে রক্তের প্রয়োজন হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে প্রতি মাসে রক্ত সংগ্রহ করা খুব কষ্টকর হয়ে পড়েছেন। তাকে বাঁচাতে পরিবারের পক্ষ থেকে টাকা পয়সা ধারদেনা করে ২/৩ লক্ষ টাকা মত খরচ করেও কোন প্রতিকূল খুঁজে না পেয়ে দিশেহারা হয়ে গেছে তার পরিবারের লোকজন।
এসম্পর্কে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত তাসলিমার মা ঝর্ণার বেগম বলেন,আমি আমার মেয়েকে বাঁচাতে চায়, ডাক্তার বলছে ভাল ভাল খাবার খাওয়াতে, ফল ফ্রুটস খাওয়াতে।আমার কাছে ঠিক মত ঔষধ খাওয়ানোর টাকা নাই,তারউপর আবার মাসে দুই বার রক্ত পরিবর্তন করতে হয়।যদি বিত্তবানরা আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য একটু সহযোগিতা করে তবে আমি আমার মেয়েকে বাঁচাতে পারব।

এসম্পর্কে জিনদপুর ইউনিয়ন পরিষদের ০৮ নং ওয়ার্ড সদস্য মালাই গ্রামের আব্দুল কাদের চৌধুরী বলেন, আমি তাসলিমাকে বাঁচতে সরকার তথা স্থানীয় সংসদ সদস্য এবাদুল করিম বুলবুল সাহেবের নিকট সহযোগিতা কামনা করি, এবং সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে তার সুচিকিৎসা করা সম্ভব হবে।তাছাড়া আমি সমাজ সেবা অধিদপ্তরে তার প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেয়া জিনদপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন বলেন, আমি তার সুস্থতা কামনার্থে সকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছি। তার পরিবারের আর্থিক অবস্থা অস্বচ্ছল তাই তার সুচিকিৎসার জন্য আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসা উচিত। আমি ব্যক্তিগত ভাবে বাসির সরকার, জুনায়েদ সহ যুব সমাজের সাথে আলোচনা করেছি তাসলিমার জন্য ফান্ড সংগ্রহের প্রচার চালিয়ে যেতে। যে কেউ তাকে সহযোগিতা করতে চাইলে তার পরিবারের মুঠোফোন ০১৬৪৭৮২৫৯১৫ নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন।

দুরারোগ্যে ব্যাধিতে আক্রান্ত তাসলিমা বলেন,আমি বাঁচতে চাই,আমি সবার মত হাটাচলা করে স্কুলে যেতে চাই। আমার চিকিৎসার জন্য একটু সহযোগিতা করুন।

পোস্টটি শেয়ার করুন