আদালতের নির্দেশ অমান্য করে সিদ্ধিরগঞ্জে বিরোধপূর্ণ জমিতে নির্মাণ কাজ চলছে

শিরোনাম সারাদেশ

সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানীনগর মাদ্রাসায় একটি বিরোধপূর্ণ ভুমিতে জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা হইতে বিরত থেকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য আদালত আদেশ দিলেও একটি পক্ষ সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি কামরুল ফারুকের নির্দেশে ওই ভূমিতে নির্মাণ কাজ করছে বলে জানা যায়।

রোববার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ রাজস্ব সার্কেল (ভুমি), এর সহকারি কমিশনার রুমানা আক্তার বিরোধপূর্ণ ভূমিতে নামজারী বাতিলের আবেদন তদন্ত করতে যান। ওই সময় ভূমিতে নির্মাণ কাজ চালু প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জমির মালিক দাবিদার কেফায়েত উল্লাহ নামে এক ব্যক্তি সহকারি কমিশনারকে উপস্থিত লোকজনদের সামনে বলেন, ওসি কামরুল ফারুকের নির্দেশেই সকাল থেকে এ নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়।

জানা গেছে, নাসিক ৩ নং ওয়ার্ডের মাদানী নগর এলাকার মাদানী নগর মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা করেন মরহুম মাও: মুহাম্মদ ইদ্রিস। এই জমি নিয়ে ১৯৬৯ সাল থেকে আদালতে মামলা করেন মৃত তাইদ উদ্দিন। এ অবস্থায় মামলা-মোকদ্দমা ও জমির মালিক দাবীদারদের বাধা উপেক্ষা করে মাওলানা মুহাম্মদ ইদ্রিস ১৯৮৪ সালে জমিটি ক্রয় করে একাংশে ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেন ।

ইতিমধ্যে এই জমির মালিক দাবীদার অপর পক্ষ মো: আব্দুল আউয়াল সিদ্ধিরগঞ্জ রাজস্ব সার্কেল (ভুমি) কার্যালয়ে বর্তমান নামজারী বাতিলের জন্য একটি আবেদন করেন। আবেদনের পর অপর পক্ষ ফয়েজ উল্লাহ গং নির্মাণ কাজ শুরু করলে আব্দুল আউয়াল আদালতে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। যার নং-৭৩৬/১৯। আদালত মামলার আবেদনের পর নালিশা ভুমিতে জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা হইতে বিরত থেকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য (ধারা: ফৌ:কা:বি: ১৪৫) আদেশ দেন। এই মর্মে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাকে চলতি মাসের ১ তারিখ এডিএম (এন) স্বারক নং ২০১৯/১৪২৭ সূত্রে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন।

আদালতের নির্দেশ অনুসারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) এইচ এম জসিম উদ্দিন উভয় পক্ষকে বিরোধপূর্ণ ভুমিতে জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা হইতে বিরত থেকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য লিখিত নোটিশ করেন। নোটিশ প্রদানের পরে ফয়েজ উল্লাহ গং নির্মাণ কাজ বন্ধ করে রাখলেওগতকাল রোববার সকাল থেকে পুনরায় কাজ শুরু করে। ওই দিনই দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভুমি) রোমানা আক্তার মাদ্রাসায় পরিদর্শনে আসেন।

এসময় নির্মাণ কাজ চালু প্রসঙ্গে উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন, আদালতের নির্দেশে এই ভুমিতে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে। কিভাবে কাজ হচ্ছে তা তিনি বোধগম্য নন। আদালতের আদেশ অমান্য করে কেউ দখল অথবা দখলের চেষ্টার জন্য কিছু করতে পারবে না। এ বিষয়ে তিনি বাদী পক্ষকে আদালতের শ্মরনাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দেন।

বাদী আব্দুল আউয়াল জানায়, আমি এ বিষয়টি বার বার ওসিকে জানালেও সে কোন ব্যবস্থা নেয়নি। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-সার্কেল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকিকে জানালে সে বিষয়টি দেখছেন বলে জানায়।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: কামরুল ফারুক জানায়, এ বিষয়টি আমার জানা নেই। এটি অপারেশন জসিমকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আপনারা তার সাথে কথা বলেন।

পরিদর্শক (অপারেশন) এইচ এম জসিম উদ্দিন জানায়, আমি উভয় পক্ষকে নোটিশ দিয়ে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য বলে এসেছি। এছাড়া আদালতে একটি প্রতিবেদন পাঠিয়েছি।

পোস্টটি শেয়ার করুন