পঞ্চগড়ে লবন নিয়ে কারসাজি, পকেট কাটা যাচ্ছে সাধারণ মানুষের

শিরোনাম সারাদেশ

মোঃ জাহেদ বিন আল মাসুদ, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ে বাজার গুলোতে লবণের কৃত্রিম  সংকট এবং মূল্য বৃদ্ধির গুজব পৌছে গেছে প্রত্যন্ত এলাকায়। পেঁয়াজের মত আরো দাম বাড়তে পারে এমন ভয় কাজ করছে ক্রেতা সাধারণের মাঝে। প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত লবণের জন্য তারা ভির করছে দোকানে দোকানে। নিত্যদিনের সকল খরচের চেয়ে ক্রেতারা অধিক গুরুত্ব দিচ্ছে লবণে। আর সুযোগ সন্ধানী ব্যবসায়ীরা ফায়দা লুটতে লবণ বিক্রি করছে চড়া দামে।

মঙ্গলবার পঞ্চগড়ের বিভিন্ন বাজার ঘুরে এসব দৃশ্য দেখা যায়। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, প্যাকেটের গায়ের মূল্যের চেয়ে ১০ থেকে ১৫ টাকা প্রতি কেজিতে বেশি গুণতে হচ্ছে।

পঞ্চগড় বাজারের রফিকুল নামের একজন ক্ষুদ্র লবন ব্যবসায়ী জানান, বাজারে ম্যাজিষ্ট্রেট আসলে খোলা লবন প্রতি বস্তা ৭শ ৫০ টাকা আর চলে যাওয়ার সাথে সাথে ১ হাজার ৫০ টাকায় বেড়ে যায়। লবনের দাম বাড়ার গুজবের খবর পেয়ে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযানে নামে কিন্তু অভিযান শেষে লবণের মূল্য আবার ও উর্ধগতিতে।এদিকে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক), পঞ্চগড়’র শিল্প সহায়ক কেন্দ্র থেকে জরুরী নোটিশের মাধ্যমে জানানো হয়েছে যে, লবণ উৎপাদনে বাংলাদেশ স্বয়ং সম্পন্ন।

গত ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত দেশে লবণের মজুত ৬.৫০ লক্ষ মেট্রিক টন। এছাড়াও সামনের মৌসুমের জন্য লবণ চাষিরা চাষ শুরু করেছে।

এ বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, পঞ্চগড়ের সহ-পরিচালক শেখ সাদী বলেন, লবণের যথেষ্ট মজুদ রয়েছে। কেউ যেন বিভ্রান্ত না হয়। যদি কোন ব্যবসায়ী অতিরিক্ত দামে লবন বিক্রি করে তাহলে প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন ফোনে জানান, আজ সন্ধ্যায় লবন নিয়ে জরুরী সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। লবনের দাম নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনী সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন