পঞ্চগড়ে নিহত নব দম্পতি পরিবারে বইছে শোকের মাতম

শিরোনাম সারাদেশ

মোঃ জাহেদ বিন আল মাসুদ, পঞ্চগড জেলা প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ে গতকাল শুক্রবার ঘটে যাওয়া সেই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা আজও গোটা এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। গতকাল পঞ্চগড় মাগুরমারি চৌরাস্তা আমতলী এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৭জনের মর্মান্তিক মৃত্যুতে এলাকায় আজও শোকের মাতম বইছে। তার মধ্যে যাকে নিয়ে বেশি সমালোচনা হচ্ছে তারা হলেন, তেতুলিয়া উপজেলার ডাকবদলি মাঝিপাড়া গ্রামের মৃত মজিবুল রহমানের ছেলে, লাবু হোসেন (২৯)ও তার স্ত্রী মুক্তি আক্তার (১৯) এই নব দম্পত্তির মাত্র ৩৩ দিন পূর্বে বিবাহ হয়েছে বলে জানা গেছে। মুক্তি আক্তার এর বাবার বাড়ি পঞ্চগড় সদরের সাতমেরা ইউনিয়নের দেলকো পাড়া গ্রামে। সেখানে গিয়ে জানা যায় মাত্র ৩৩ দিন পূর্বে লাবু হোসেনের সাথে মুক্তি আক্তার এর বিবাহ হয়।অপরিচিত দুটি প্রাণ কেবল পরিচিত হতে শুরু করেছে। হাজার খানেক স্বপ্ন তাদের ছোট্ট সংসারে। আবার মুক্তির বিয়ের হাতের মেহেদির রং মুছতে না মুছতেই ঠিক এমনি সময়েই তাদের একসঙ্গেই শেষ যাত্রা করতে হলো এই নব দম্পতিকে। পঞ্চগড় জাতীয় সড়কে, ইজিবাইক ও বাস মিলে কেড়ে নিলো তাদের জীবন। সেইসাথে কেড়ে নিয়েছে আরো পাঁচ জনের জীবন। এদের এই মর্মান্তিক মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে কারো মুখে হাসি নেই। এই সড়ক দুর্ঘটনাটি যখন ঘটে পুরো এলাকার মানুষ ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে পঞ্চগড় সদর থেকে দাঙ্গা পুলিশ গিয়ে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আনে। এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনার কথা শুনে, পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলি ঘটনাস্থলে প্রায় তিন কিলোমিটার হেঁটে গিয়ে এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনার জন্য সমবেদনা জানান এবং বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তারা জানান।

পোস্টটি শেয়ার করুন