আন্তর্জাতিক অহিংস দিবসে আলোচনা ও মহাত্মা গান্ধী পিচ অ্যাওয়ার্ড প্রদান

বাংলাদেশ শিরোনাম

নিজস্ব প্রতিবেদক : আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উদযাপন উপলক্ষে ২ অক্টবর রাজধানির শেগুনবাগিচা শিশু কল্যান পরিষদ হলরুমে, মহত্মা গান্ধী গবেশনা পরিষদ আয়োজিত,সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আমাদের ঐতিহ্য শীর্ষক আলোচনা ও মহাত্মা গান্ধী পিচ অ্যাওয়ার্ড (বিশ্ব শান্তি দিবস) পুরষ্কার ২০২১ প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২০০৭ সালের ১৫ই জুন জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ২ অক্টোবর-কে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়। তখন থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দিবসটি উদযাপিত হয়ে আসছে।যে প্রেক্ষাপটকে সামনে রেখে ২ অক্টোবরকে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস ঘোষণা করা হলো, তা অনুসন্ধান করতে গিয়ে দেখা যায়, অহিংস আন্দোলনের প্রবক্তা ও ভারত জাতির জনক মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর জন্মদিনকেই অহিংস দিবস হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। ভারতের স্বাধীনতালাভের পর থেকেই ২ অক্টোবরকে শান্তি ও মানবতার প্রতীক হিসেবে মহাত্মা গান্ধীর জন্মোৎসব পালন করা হয়।

সর্বপ্রথম ২০০৪ সালে বোম্বেতে অনুষ্ঠিত ‘ওয়াল্ড সোসাল ফোরাম’ এ শান্তিতে নোবেল বিজয়ী শিরীন এবাদির কাছে ২ অক্টোবরকে অহিংস দিবস হিসেবে ঘোষণার জন্য উদ্যোগ গ্রহণের অনুরোধ জানান একজন শিক্ষক। পরবর্তীতে ২০০৭ সালে দিল্লিতে অনুষ্ঠিত ‘সত্যগ্রহ কনফারেন্স’ থেকে সোনিয়া গান্ধী ও ডেসমন্ড টুটু জাতিসংঘের প্রতি গান্ধীর জন্মদিনকে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস ঘোষনার আহ্বান জানালে সদস্য রাষ্ট্রসমূহের সম্মতি সাপেক্ষে ২ অক্টোবরকে ‘আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

অনুষ্ঠানটিতে বিশিষ্ঠ সাংবাদিক,লেখক ও মহত্মা গান্ধী গবেশনা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম কাদেরের সভাপতিত্বে ও বিশিষ্ঠ সাংবাদিক জাবেদ আলমের সঞ্চালনায়

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ডক্টর নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ চেয়ারম্যান জানিপপ ও সাবেক ভিসি রংপুর রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়। অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন বঙ্গবন্ধু গবেষক ও পিস ফোরাম চেয়ারম্যান সরোয়ার ওয়াদুদ চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য প্রদান করেন ডাক্তার উত্তম কুমার বড়ুয়া ,যুগ্ন মহাসচিব স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ স্বাচিপ ও সভাপতি বঙ্গবন্ধু গবেষনা পরিষদ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রফেসর ডক্টর শামসুল আলম মিঠু উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা উদ্যান তত্ববিভাগ (বিনা)।বিশেষ অতিথি হিসাবে আরো বক্তব্য রাখেন ডক্টর মোহাম্মদ মফিজুল্লাহ ফরিদ,পচিালক বাংলাদেশ নার্সিং অধিদপ্তর মহাখালি।লায়ন হামিদুল আলম সখা,সদস্য বন ও পরিবেশ বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।মোঃ সুজাতুল আলম কল্লোল সদস্য সংস্কৃতিক বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।শাহরিয়ার মাহমুদ প্রিন্স সাংবাদিক ও প্রাবন্ধীক

আলোচান সভা শেষে মহাত্মা গান্ধী পিচ অ্যাওয়ার্ড (বিশ্ব শান্তি দিবস) পুরষ্কার ২০২১ প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে স্বস্বঅবস্থান থেকে আর্থ সামাজিক কাজে যাঁরা সমাজে আলো ছড়ানোর কাজে নিয়োজিত রয়েছেন।যাঁদের কাজের মাধ্যমে সমাজে সান্তি,সামাজিক নিরাপত্তা,আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও দায়বদ্ধতা পরিলক্ষিত হয়েছে তাদের কে মহাত্মা গান্ধী পিচ অ্যাওয়ার্ড (বিশ্ব শান্তি দিবস) পুরষ্কার ২০২১ সে ভূষিত করা হয়।

মহাত্মা গান্ধী পিচ অ্যাওয়ার্ড (বিশ্ব শান্তি দিবস) পুরষ্কার ২০২১ পেলেন,মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদানে যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধ্ কমান্ডার মোহন,ন্যাশনাল সিকিউরিটি ফোরসেস ল্যান্স নায়েক,অবসরপ্রাপ্ত ডিজিএফআই । বিশিষ্ঠ সমাজ সেবক রাজনিতিবীদ ও সংগঠক দেওয়াম মেহেদী মাসুদ মঞ্জু।আইনজ্ঞ ও সমাজ সেবক ব্যারিস্টার আজিজুল হক মীর।দেশ জনকল্যান সংস্থা প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মাদ সুজন। নিবেদিত প্রান সমাজ সেবক আশুলিয়া ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ড সদস্য মোহাম্মাদ আলী সরকার সহ আরো অনেকে

পোস্টটি শেয়ার করুন