পঞ্চগড়ে সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী।

বাংলাদেশ শিরোনাম
মোঃ জাহেদ বিন আল মাসুদ, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি,
পঞ্চগড় তেতুলিয়া উপজেলায় দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ৮ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র উদ্বোধন ঘোষনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।বুধবার সকাল ১০ টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তেতুলিয়া উপজেলার সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র সহ দেশে মোট ৬ টি কেন্দ্রের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের হলরুমে বুধবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সের আয়োজনে জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, জেলা সহ পাঁচ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তা উপস্থিত থেকে এ সময় গণভবন থেকে সরাসরি পঞ্চগড়ে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৮ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুঃ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
তথ্য সূত্রে জানা যায়, পঞ্চগড় জেলা তেতুলিয়া উপজেলা মাঝিপাড়া এলাকায প্যারাগন গ্রুপের প্রতিষ্ঠান অ্যাকুয়া ব্রিডার্স লিমিটেডের মুরগির বাচ্চা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের অভন্তরে জালানি মন্ত্রণালয়েল সাথে সিম্পা সোলার পাওয়ার প্লাট লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান ২০ বছর চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজ শুরু করেছে ২০১৮ সালের মে মাস থেকে। সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি যৌথ ভাবে পরিচালনা করছে বাংলাদেশ প্যারাগণ গ্রপ ও জার্মানি সিম্বায়র সোলার সিয়াম লিমিটেড। সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে বর্তমানে ৩৭হাজার৫১২টি সোলার প্যানেল স্থাপন করে ৯৪টি ইনভার্টার ব্যবহার করে প্রতি ঘন্টায় ৮ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে। চলতি বছরে ২৭ জুলাই থেকে প্রতিষ্ঠানটি বাণিজ্যিক ভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাজ শুরু করেছে।যার ফলে সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি নির্মাণে যেমন লোডশেডিং ও লো-ভোল্টেস্ হ্রাস পাবে অন্যদিকে তেতুলিয়া উপজেলায় বিদ্যুৎ এর চাহিদা পুরনে ভুমিকা রাখবে,অবশিষ্ট বিদ্যুৎ পঞ্চগড় গ্রেডে সর্বরাহ করা হবে।এদিকে সিম্পা সোলার পাওয়ার লিমিটেড তথ্য সূত্রে জানা যায়, ৩৭হাজার৫১২ টি প্যানেল স্থাপন করে ৯৪ টি ইনভার্টারের মাধ্যমে ১০ দশমিক ৩  (ডিসি) বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হচ্ছে এবং ৩টি ট্রান্সফর্মার মাধ্যমে এসি বিদ্যুৎ এ রুপান্তরিত করে ৩৩ হাজার ভোল্ট লাইনের পরিচালনায় নেসকো সাব স্টেশনে সরবরাহ করা হবে চাহিদা অনুযায়ি তেতুলিয়া উপজেলায় ৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ব্যবহার করে বাকি পঞ্চগড় গ্রেডে যোগ করা হবে।
পোস্টটি শেয়ার করুন