সিদ্ধিরগঞ্জে গিয়াসউদ্দিন স্কুলের পিইসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

শিরোনাম শিল্প-সাহিত্য

শাহাদাৎ হোসেন:: সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিল এলাকায় গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ইহকাল এবং পরকালের জন্য শিক্ষা গ্রহন করতে হবে।

বুধবার সকাল ১০’টায় গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুলের পিইসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা ও সফলতা কমানায় দোয়া অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, কিছু কিছু কাজ দুনিয়াতে করলে কেউ দেখবেনা-কেউ শুনবেনা, এসব কাজ করলে আল্লাহ খুশি হবেন। যার ফল পাওয়া যাবে পরকালে। আমাদের বইপুস্তুকের অনেক জায়গায় লেখা আছে, ‘ইহকাল এবং পরকালের জন্য শিক্ষা’ যা আমাদের প্রতিষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। পরকালই গুরুত্বপূর্ণ। ছেলেদের মাথায় টুপি ও মেয়েদের হিজাব দেওয়া হয়েছে, এতে খারাপ কাজ করতে গেলে তোমাদের মনে বাধা চলে আসবে। যার পুরষ্কার তোমরা মৃত্যুর পর পাবে। শিক্ষার্থীদের আমরা এমন ভাবে শিক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করি, যেই শিক্ষা ইহকাল এবং পরকালেও কাজে লাগবে। তাই প্রতিটা কাজে আল্লাহর উপর ভরসা রাখতে হবে।

গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন, গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের উপাধ্যক্ষ মীর মোসাদ্দেক হোসেন, শিশির ঘোষ অমর, এলাহী নেওয়াজ তালুকদার, মোহাম্মদ সুরুজ্জামান, সিফাতু ই-জাহান শিরিন, বিথিকা বসু, পারভীন সুলতানা, কাজল রেখা, শারমিন সুলতানা, শাহানাজ ফারুক, মারিয়া ইসলাম, মাওলানা আবু তাহের, জাহিদ আফরোজ, মাওলানা ওবাইদুল্লাহ, রীটা রানী সাহা, নুর জাহান আক্তার, শাহ মাহমুদা, রেজাউল ইসলাম, মাওলানা মকবুল হোসেন, রানা আহাম্মেদ, শওকত মোল্লা ও বিথী রানী ভৌমিক প্রমূখ।

অনুষ্ঠানটির সঞ্চলনা করেন গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুলের প্রভাতি শাখার ইনর্চাজ মুহাম্মদ মহিউদ্দিন।

পোস্টটি শেয়ার করুন